অসম্মানজনক বিদায়ের পথে ট্রাম্প

আন্তর্জাতিক

যুক্তরাষ্ট্রের ইতিহাসে এই প্রথম কোনও প্রেসিডেন্ট দ্বিতীয়বার অভিশংসিত হলেন।

দ্বিতীয়বার অভিশংসিত হয়ে অসম্মানজনক বিদায়ের পথে মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। যুক্তরাষ্ট্রের ইতিহাসে এই প্রথম কোনও প্রেসিডেন্ট দ্বিতীয়বার অভিশংসিত হলেন। প্রতিনিধি পরিষদের এ পদক্ষেপে ক্যাপিটল হিলে হামলার দায়ে ট্রাম্পকে সরানোর প্রক্রিয়ায় আরও একধাপ এগিয়ে গেলেন ডেমোক্র্যাটরা।

বুধবার ক্যাপিটল হিলে বিদ্রোহ উস্কে দেয়ার অভিযোগে মার্কিন কংগ্রেসের প্রতিনিধি পরিষদে ট্রাম্পের অভিশংসনের প্রস্তাবে ভোটগ্রহণ হয়। ৪৩৫ সদস্যের মধ্যে ২৩২ ভোটে অভিশংসিত হন ট্রাম্প। অভিশংসনের বিপক্ষে ভোট দেন ১৯৭ জন আইনপ্রণেতা। অভিশংসনের প্রস্তাবের পক্ষে ডেমোক্র্যাটদের পাশাপাশি ১০ রিপাবলিকান আইনপ্রণেতাও ভোট দেন। তবে রিপাবলিকানদের বেশিরভাগই অভিশংসনের বিপক্ষে ছিলেন।

প্রস্তাবে স্বাক্ষর করার পর হাউজ স্পিকার ন্যান্সি পেলোসি অভিযোগ করেন, যুক্তরাষ্ট্রের জন্য হুমকি প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প।

এদিকে, এক ভিডিও বার্তায় আবারও ওই হামলার নিন্দা জানান ডোনাল্ড ট্রাম্প। তিনি দাবি করেন, তার প্রকৃত সমর্থকরা কখনোই সহিংস কর্মকাণ্ডে জড়াতে পারে না।

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট ভিডিও বার্তায় বলেন, ‘গত সপ্তাহে আমরা যে সহিংসতা দেখেছি আমি দ্ব্যর্থহীনভাবে এর নিন্দা জানাই। আমাদের আন্দোলনে সহিংসতা ও ভাঙচুরের কোনও স্থান নেই। আমার সত্যিকার সমর্থকরা কখনোই আইন লঙ্ঘন করে কাউকে ক্ষতিগ্রস্ত করতে পারেন না।’

প্রতিনিধি পরিষদে পাস হওয়া এই প্রস্তাব নিয়ে এরপর কংগ্রেসের উচ্চ কক্ষ সিনেটে শুনানি হবে। ১০০ সদস্যের সিনেটের দুই-তৃতীয়াংশ সদস্য সম্মতি দিলে তবেই ট্রাম্পকে অপসারণ করা যাবে।

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না।