টেন্ডুলকারের বিরুদ্ধে সীমালঙ্ঘনের অভিযোগ!

খেলাধুলা

ভারতের কৃষক আন্দোলন নিয়ে শচীন টেন্ডুলকারের করা মন্তব্যের প্রতিক্রিয়ায় যেকোন বিষয়ে কথা বলার সময় তাকে আরো সাবধান হতে বললেন জাতীয়তাবাদী কংগ্রেস পার্টির (এনসিপি) প্রধান শারদ পাওয়ার। এনডিটিভির এক প্রতিবেদনে এমনটি বলা হয়েছে।

এর আগে, পপ তারকা রিহানা সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভারতে চলমান কৃষকদের বিক্ষোভ সম্পর্কে মন্তব্য করার পর ক্রিকেট কিংবদন্তি শচীন টেন্ডুলকার সরকারকে সমর্থন করে টুইট করেন।

এ বিষয়ে শনিবার শারদ পাওয়ার টেন্ডুলকারকে উদ্দেশ্য করে বলেন, ‘ভিন্ন কোন ইস্যুতে কথা বলার সময় আরো সাবধান হতে হবে।’

ভারতীয় সংবাদ সংস্থা এএনআই শারদ পাওয়ারের বরাত দিয়ে বলেছে, ‘ভারতীয় সেলিব্রিটিদের অবস্থান নিয়ে অনেকেই তীব্র প্রতিক্রিয়া ব্যক্ত করছেন। আমি শচীনকে অন্য কোনও ইস্যুতে কথা বলার সময় আরো সাবধানতা অবলম্বন করার পরামর্শ দিব।

এছাড়া, আন্দোলনকারীদের খালিস্তানী বা সন্ত্রাসী বলায় কেন্দ্রের কড়া সমালোচনাও করেছেন এনসিপি প্রধান।

সংবাদ সংস্থা পিটিআই শারদ পাওয়ারের বরাত দিয়ে বলেন, ‘আন্দোলনকারী কৃষকেরা আমাদের দেশকে খাওয়ান। তাদেরকে খালিস্তানি বা সন্ত্রাসবাদী বলা ঠিক নয়।’

এর আগে ১০০ কোটির বেশি টুইটার ফলোয়ার থাকা রিহানা তার টুইটারে বলেছিলেন, কেন আমরা এ বিষয়ে কথা বলছি না? এমনকি তিনি টুইটারে করা পোস্টে কৃষক আন্দোলনের সমাবেশে ইন্টারনেট সংযোগ বিচ্ছিন্ন হওয়ার ঘটনার একটি সংবাদও সংযুক্ত করে দিয়েছিলেন।

রিহানার টুইটের প্রতিক্রিয়ায় ভারতীয় সরকারকে সমর্থন জানিয়ে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে সর্বোচ্চ রানের মালিক ও রেকর্ডের বরপুত্র শচীন টেন্ডুলকার হ্যাশট্যাগ ইন্ডিয়া টুগেদার এবং হ্যাশট্যাগ ইন্ডিয়া এগেইন্সট প্রোপাগান্ডা লিখে এক টুইট বার্তায় বলেছিলেন, ভারতের সার্বভৌমত্ব নিয়ে কোন আপস নয়। বাইরের মানুষ দর্শক হতে পারেন কিন্তু অংশগ্রহণকারী হতে পারেন না।