কিউবার পুলিশ বাহিনীর ওপর যুক্তরাষ্ট্রের নিষেধাজ্ঞা

আন্তর্জাতিক

এবার কিউবার পুলিশ বাহিনী ও এর দুই শীর্ষ কর্মকর্তার ওপর নিষেধাজ্ঞা দিল যুক্তরাষ্ট্র।

দেশটির অর্থমন্ত্রলায়ের বরাত দিয়ে বার্তা সংস্থা রয়টার্স জানিয়েছে, চলতি মাসের সরকারবিরোধী বিক্ষোভে দমনপীড়ন চালানোর অভিযোগে শুক্রবার এই নিষেধাজ্ঞা দেয়া হয়। গত ১১ই জুলাই কিউবায় শুরু হওয়া শান্তিপূণ, গণতন্ত্রপন্থি বিক্ষোভ দমাতে নেয়া পদক্ষেপের জবাবে নতুন করে নিষেধাজ্ঞার বিষয়টি নিশ্চিত করেছে মন্ত্রণালয়।

এদিকে কিউবান-আমেরিকান নেতাদের সঙ্গে এক বৈঠকে হাভানার বিরুদ্ধে আরও ব্যবস্থা নেওয়ার প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন। যুক্তরাষ্ট্রের নিষেধাজ্ঞার মুখে কিউবার পাশে দাঁড়িয়েছে মেক্সিকো, রাশিয়া ও বলিভিয়াসহ বেশ কয়েকটি দেশ। এসব দেশ থেকে কিউবায় খাবার, ওষুধ ও চিকিৎসা সরঞ্জাম পাঠানো হচ্ছে।

এর আগে, কিউবায় সরকারবিরোধী বিক্ষোভকারীদের দমনের জেরে দেশটির নিরাপত্তা মন্ত্রীর ওপর নিষেধাজ্ঞা আরোপ করেছে যুক্তরাষ্ট্র। এদিকে বিক্ষোভ দমনে সরকারের কঠোর পদক্ষেপ নেয়ায় কিউবার বিরুদ্ধে মানবাধিকার লঙ্ঘনের অভিযোগ আনে যুক্তরাষ্ট্র। অন্যদিকে, মার্কিন এ নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাখ্যান করেছে কিউবার পররাষ্ট্রমন্ত্রী ব্রুনো রদ্রিগেজ।

উল্লেখ্য, চলতি মাসে করোনা মোকাবিলায় ব্যর্থতা, অর্থনৈতিক সংকট ও জনসাধারণের স্বাধীনতায় হস্তক্ষেপের অভিযোগে কিউবায় সরকারবিরোধী বিক্ষোভে অংশ নেয় হাজারো মানুষ। বিক্ষোভে উত্তাল হয়ে ওঠে দেশটি। বিক্ষোভকারীদের কঠোরভাবে দমন করে দেশটির নিরাপত্তাবাহিনী। এছাড়া আটক করা হয় কয়েকশ বিক্ষোভকারীকে।