১২২ রানে থামল বাংলাদেশ

খেলাধুলা

বাংলাদেশ-অস্ট্রেলিয়ার মধ্যকার পাঁচ ম্যাচ টি-টোয়েন্টি সিরিজের ৫ম ও শেষ ম্যাচে ১২২ রানে থামল টাইগাররা।

এর আগে, টস জিতে প্রথমে ব্যাটিংয়ের সিদ্ধান্ত নিয়েছে বাংলাদেশ দল। এরপর নাঈম এবং মাহেদি হাসানের উড়ন্ত সূচনা দেখতে পায় টাইগাররা। ৪২ রানে দলের প্রথম উইকেটের পতনের পর একে একে আবারও সেই ব্যাটিং ব্যর্থতার প্রমাণ দিতে থাকে দলের বাকি সবাই। দলের পক্ষে সর্বোচ্চ ২৩ রান করেন মোহাম্মাদ নাঈম। দলীয় ৫৭ রানে নাঈম ফিরে যাওয়ার কিচুক্ষণ পরেই প্যাভিলিয়নের পথ ধরেন সাকিবও। নিজের ব্যক্তিগত ১১ রানের মাথাায় টি-টোয়েন্টিতে ৪র্থ বার এবং সর্বশেষ ৮৩ ম্যাচ পর এলবিডব্লিউ এর ফাঁদে পরেন সাকিব। এরপর মাহমুদুল্লাহর ১৯, সৌম্যর ১৬ এবং আফিফের ১০ রানে ভর করে ১২২ রানের পুঁজি দাঁড় করাতে সক্ষম হয় টাইগাররা।

অজিদের হয়ে নাথান এলিচ এবং ড্যানিয়েল ক্রিশ্চিয়ান উভয়ই নেন দুইটি করে উইকেট। টার্নার, অ্যাগার এবং জাম্পা নেন একটি করে ইউকেট।

এরইমধ্যে সিরিজ জিতে নেয়া টাইগাররা ৩-১ এ এগিয়ে আছে। বাংলাদেশ দলে এসেছে দুইটি পরিবর্তন। শামীম পাটোয়ারি ও শরিফুল ইসলামের পরিবর্তে দলে ফিরেছেন মোসাদ্দেক হোসেন সৈকত ও মোহাম্মদ সাইফুদ্দিন।

প্রথম তিন ম্যাচ জিতে খানিকটা রিলাক্সে ছিল বাংলাদেশ। চোখ ছিল হোয়াইটওয়াশের দিকে। তবে সিরিজের চতুর্থ ম্যাচে এসে সফরে প্রথম জয়ের দেখা পায় অজিরা। এড়িয়েছে হোয়াইটওয়াশও। এখন শেষ ম্যাচ জিতে পরাজয়ের ব্যবধান কমানো টার্গেট এখন অস্ট্রেলিয়ার। তবে শেষ ম্যাচ জিতে ব্যবধানটা বাড়ানোর দিকেই দৃষ্টি বাংলাদেশ দলের। এদিকে আগামী মাসেই নিউজিল্যান্ডের সাথে ঘরের মাঠে আরেকটা টি টোয়েন্টি সিরিজ বাংলাদেশের। তার আগে জয় দিয়ে অস্ট্রেলিয়ার সাথে সিরিজ শেষ করতে চায় টাইগার স্কোয়াড।