‘তীব্র স্রোতের সময় পদ্মা সেতুর নিচে দিয়ে ভারী নৌযান চলবে না’

বাংলাদেশ

বর্ষা মৌসুমে, তীব্র স্রোতের সময় পর্যন্ত পদ্মা সেতুর নিচে দিয়ে কোন ভারী নৌযান ও ফেরি চলাচল করতে পারবে না বলে জানিয়েছেন নৌ-প্রতিমন্ত্রী খালিদ মাহমুদ চৌধুরী।

মঙ্গলবার দুপুরে সচিবালয়ে একথা বলেন তিনি।

প্রতিমন্ত্রী বলেন, পদ্মা সেতুন নিচ দিয়ে অ্যাম্বুলেন্সবাহী হালকা নৌযান চলবে। বিকল্প পথে ভারী যান নিয়ে ফেরি চলবে। আজকে থেকেই এ সিদ্ধান্ত কার্যকর হবে। যাত্রী ও ভারি পণ্যবাহী ফেরি চলাচলের জন্য পাটুরিয়া-দৌলতদিয়া রুটে ফেরির সংখ্যা বাড়ানো হবে বলেও জানান তিনি। 

এদিকে, নির্মানাধীন পদ্মা সেতুর পিলারে ধাক্কা দেয়া রো রো ফেরি বীরশ্রেষ্ঠ জাহাঙ্গীরের ভারপ্রাপ্ত মাস্টার কর্মকর্তা ও ইনল্যান্ড মাস্টার অফিসার দেলোয়ারুল ইসলাম এবং হুইল সুকানি আবুল কালাম আজাদকে চাকরি থেকে সাময়িক বরখাস্ত করেছে বিআইডব্লিউটিএ। পরে তাদের বিরুদ্ধে বিভাগীয় মামলা রুজু করা হবে বলেও জানানো হয়েছে। এ ঘটনায় লৌহজং থানায় জিডি করেছে পদ্মা সেতু কর্তৃপক্ষ।  

সোমবার (৯ আগস্ট) সন্ধ্যায় পদ্মা সেতুর ১০ নম্বর পিলারে আঘাত হানে ফেরি বীরশ্রেষ্ঠ জাহাঙ্গীর। এ সময় ২০ যাত্রী আহত হয়েছেন। গুরুতর আহত একজনকে স্থানীয় হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। ওই ঘটনায় দুই জনকে সাময়িক বরখাস্ত করেছে অভ্যন্তরীণ নৌপরিবহন করপোরেশন। ঘটনা তদন্তে গঠন করা হয়েছে ৫ সদস্যের কমিটি।

এর আগে গত ২৩ জুলাই সকাল ১০টার দিকে পদ্মা সেতুর ৭ নম্বর পিলারের সঙ্গে ধাক্কা খায় রো রো ফেরি শাহ জালাল। এতে ২০ জন যাত্রী আহত হন। ফেরিটি মাদারীপুরের বাংলাবাজার ঘাট থেকে রওনা দিয়ে মুন্সিগঞ্জের শিমুলিয়া ঘাটে আসছিল।