তারেক মাসুদ ও মিশুক মুনীরের ১০ম মৃত্যুবার্ষিকী

সংস্কৃতি ও বিনোদন

মানিকগঞ্জে নানা কর্মসূচির মধ্যদিয়ে পালিত হয়েছে তারেক মাসুদ ও মিশুক মুনীরের ১০ম মৃত্যুবার্ষিকী।

আজ শুক্রবার সকালে দুর্ঘটনাস্থল ঢাকা-আরিচা মহাসড়কের জোকা এলাকায় নির্মিত স্মৃতিস্তম্ভে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা জানায় তারেক মাসুদ-মিশুক মুনীর স্মৃতি সংসদ, জেলা প্রেসক্লাবসহ বিভিন্ন সংগঠন। পরে সড়কের দুইপাশে গাছের চারা রোপণ ও পথচারীদের মধ্যে মাস্ক বিতরণ শেষে নিরাপদ সড়কের দাবিতে মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়। 

২০১১ সালের ১৩ই আগস্ট মানিকগঞ্জের ঘিওর উপজেলার জোকা এলাকায় মর্মান্তিক সড়ক দুর্ঘটনায় তারা নিহত হন। ওই দুর্ঘটনায় আরও তিনজন নিহত হন। তারা হলেন- চালক মুস্তাফিজ, তারেক মাসুদের প্রোডাকশন ম্যানেজার ওয়াসিম ও কর্মী জামাল। 

তারেক মাসুদ, তার সহধর্মিণী ক্যাথরিন মাসুদ, আশফাক মিশুক মুনীরসহ ৯ সদস্যের একটি দল ‘কাগজের ফুল’ নামে একটি নতুন চলচ্চিত্রের লোকেশন দেখতে যান মানিকগঞ্জ। সেখান থেকে ফেরার পথে এ দুর্ঘটনা ঘটে।

দেশের চলচ্চিত্রকে আন্তর্জাতিক অঙ্গনে নিয়ে যেতে অগ্রণী ভূমিকা রেখেছেন ‘মাটির ময়না’র পরিচালক তারেক মাসুদ। ১৯৮৯ সালে চিত্রশিল্পী এস এম সুলতানকে নিয়ে ‘আদম সুরত’ নামে একটি তথ্যচিত্র নির্মাণ করেন তিনি।

বাংলাদেশের মুক্তিযুদ্ধের ওপর ১৯৯৫ সালে তারেক মাসুদের নির্মিত প্রামাণ্যচিত্র ‘মুক্তির গান’ ও ‘মুক্তির কথা’ (১৯৯৬) প্রশংসিত হয় আন্তর্জাতিক অঙ্গনেও।